জেলা উপজেলা

পটিয়ায় ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ১৮ বসত ঘর পুড়ে ছাই : খোলা আকাশের নিচে পরিবার গুলো

আবদুল হাকিম রানা : বাংলা নববর্ষের প্রথম দিনে পটিয়া উপজেলার জিরি ইউনিয়ের ৪ নং ওয়াডের দক্ষিণ নাথ পাড়ায় আজ সোমবার সকাল সাড়ে নয়টার দিকে রান্নার চুলার হতে আগুন লেগে ১৮ টি বসত ঘর পুড়ে গেছে। জানা যায়, নববর্ষের ১ম দিনের সাড়ে নয়টার দিকে একজন গৃহবধূ রান্নাঘরের চুলায় ভাতের পাতিল বসিয়ে পার্শ্বের মন্দিরে পূজা দিতে যায়। আর ততক্ষণে সেই চুলা হতে আগুনের লেলিহান শিখা এক এক করে সবকটি ঘরে ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়ে। সাথে সাথে স্হানীয়রা সরকারি সেবা সংস্থার হট লাইনে ৯৯৯ এ কল দিয়ে জানালে সে খবর পেয়ে পটিয়া ফায়ার সার্ভিসের টিম বিশ মিনিটের মধ্যে ঘটনাস্থলে পৌঁছে প্রায় একঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হন। আর ততক্ষণে নাথ পাড়ার লোকজনের কিছু অবশিষ্ট রইল না সবকিছু পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। ক্ষতিগ্রস্ত নাথ পাড়ার পরিবার গুলো হল তাপস নাথ, মনোরঞ্জন নাথ, ঝন্টু নাথ, চিত্তরন্জন নাথ, মধু নাথ, যীশু নাথ, রুপন নাথ, বিপন নাথ, নিপু নাথ, অরবিন্দু নাথ, সুজন নাথ, মনোরন্জন নাথ, সুনীল নাথ, রুহিনী নাথ, প্রফুল্ল নাথ, বাদল নাথ, টিটু নাথ ও পবন নাথ।

পটিয়া ফায়ার সার্ভিসের ষ্টেশন অফিসার সোমেন বড়ুয়া জানান, আমরা সকাল সাড়ে নয়টার দিকে জাতীয় জরুরী সেবা ৯৯৯ হতে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে ঘন্টা খানেকের মধ্যে আগুন নিয়ন্ত্রণ করতে পেরেছি। আগুনের সুত্রপাত সম্পর্কে তিনি তাতক্ষনিক কিছু জানাতে পারেনি। তবে তদন্ত ছাড়া কি পরিমাণ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে তা তদন্ত সাপেক্ষে বলা যাবে। ফায়ার সার্ভিসের এ কর্মকর্তা আরো জানান, আজকে যে পরিমান লোকজনের ভিড়ের মধ্যে সামাজিক দুরত্ব বজায় ছাড়া আমরা কাজ করেছি তাতেই করোনা ভাইরাস বহনের ঝুঁকি থেকে যাচ্ছে। তবে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের লোকজনের সাথে কথা বলে জানা গেছে, তাদের কিছু অবশিষ্ট নেই সব পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। তাদের পরিবার পরিজনদের নিয়ে আজ বাংলা নতুন বছরের প্রথন দিনে এভাবে খোলা আকাশের নীচে অবস্থান করতে হবে তা ভাবতে কষ্ট হচ্ছে । তবে ক্ষয়ক্ষতির পরিমান আনুমানিক ত্রিশ লক্ষ লাখ টাকার মতো হতে পারে।

এখানে মন্তব্য করুন