স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা

পটিয়ায় স্বাস্থ্যকর্মীর পরিবারের ৬ জনের করোনা পজেটিভ

আবদুল হাকিম রানা : বিশ্ব এখন মহামারী পরিস্থিতিতে পরিনত হয়েছে।দিন দিন বাড়ছে করোনার ঝুঁকি,করোনা ভাইরাস সংক্রমণের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে স্বাস্থ্যকর্মীরা।
এদিকে গত বৃহস্পতিবার (১৪ মে) এক স্বাস্থ্যকর্মীর বাবা (৭৫) ও অন্য এক স্বাস্থ্যকর্মীর শিশুপুত্রসহ ৬ জন নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

এদিকে গত বৃহস্পতিবার রাতে স্বাস্থ্য বিভাগের তথ্য নিয়ে জানান পটিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফারহানা জাহান উপমা।

করোনা ভাইরাসে সংক্রামিত হওয়া নতুন শনাক্তদের মধ্যে পটিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ল্যাব টেকনিশিয়ান ও করোনাভাইরাস পরীক্ষার নমুনা সংগ্রহ করা এক স্বাস্থ্যকর্মীর ২ বছর ৮ মাস বয়সের এক শিশু পুত্র ও বৃদ্ধ পিতা (৭৫) ।

এছাড়া পটিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য সহকারী নারী ও তার ১ বছর ৩ বয়সী পুত্র সন্তানও করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানা গেছে। আক্রান্ত হওয়ার স্বাস্থ্য সহকারীর স্বামী পটিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ইপিআই কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত।

অন্য দিকে নতুন আক্রান্ত  দুইজনের বাড়ি পটিয়া পৌর সদরের ৮ নং ওয়ার্ডের গোবিন্দরখীল এলাকায় তাদের একজনের বয়স ২১ বছর ও অন্যজনের ৩০ বছর বলে জানা গেছে।

এদিকে পটিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফারহানা জাহান উপমা বলেন, ‘নতুন শনাক্ত ছয়জনের মধ্যে চারজন পটিয়া হাসপাতালের দুই স্বাস্থ্যকর্মীর স্বজন। একজন স্বাস্থ্যকর্মীর বৃদ্ধ পিতা ও শিশু সন্তান, অন্যজনের স্ত্রী ও শিশু পুত্রের করোনা পজেটিভ তাদেরকে পটিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আইসোলেশনে রাখা হয়েছে।

নোবেল করোনা ভাইরাস সংক্রমণের কারনে এ পর্যন্ত পটিয়ায় আক্রান্তের হয়েছেন ২১ জন। তার মধ্যে ২ জনের মৃত্যু ঘটে। একজন সুস্থ হয়ে বাসায় ফেরেন। বাকী ১৭ জন আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন রয়েছে বলে তথ্য সূত্রে জানা যায়।

এখানে মন্তব্য করুন